গরুর ভুড়ি কি খাওয়া স্বাস্থ্যকর?

  Generate and Copy Share Link for Earning

 

উত্তর

গরুর মাংসের থেকে গরুর ভুরি অনেক বিপদ হতে পারে । কারণ এর রয়েছে কিছু ক্ষতিকর দিক। ভুঁড়ি গরুর মাংসের চেয়েও বেশি ক্ষতি করে স্বাস্থ্যের। তবে এর উপকারী দিকও রয়েছে।

এতে রয়েছে জিঙ্গ, সেলেনিয়াম, আয়রনসহ ক্যালসিয়াম। যা শরীরের জন্য খুবই উপকারী। তবে অনেকের জন্য ভুঁড়ি হতে পারে বিপজ্জনক। জেনে নিন কারা খাবেন না ভুঁড়ি আর খেলেও কতটুকু খেতে পারবেন-

> হার্টের রোগীরা একেবারেই এড়িয়ে চলুন ভুঁড়ি। এতে শরীরে কোলেস্টেরল বেড়ে গিয়ে আপনার হার্টের আরো বেশি ক্ষতি করতে পারে। তবে দিনে ২০০ মি.গ্রার মতো খেতে পারেন।

> ভুঁড়িতে দুই ধরনের ফ্যাট থাকে। স্যাচুরেটেড ফ্যাট আর ট্রান্স ফ্যাট। স্যাচুরেটেড ফ্যাটের মাত্রা এক দশমিক তিন গ্রাম আর ট্রান্স ফ্যাটের মাত্রা শূন্য দশমিক দুই গ্রাম। এতে ওজন বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে অনেক বেশি।

> খাওয়ার আগে অবশ্যই ভুঁড়ি ভালোভাবে পরিষ্কার করুন। রান্নার সময় ভালোভাবে সিদ্ধ করুন। গরুর শরীরের এই অংশে প্রচুর ব্যাকটেরিয়া জমা থাকে। যা শরীরের জন্য মারাত্মক ক্ষতি করতে পারে।

 

উত্তর

শরীয়তের বিধান মতে ভূড়ি খাওয়া নাজায়েয নয়।(ফাতাওয়ায়ে মাহমুদিয়্যাহ-১৭/২৯২)

সুতরাং এটি খাওয়া জায়েজ আছে। কোনো সমস্যা নেই। তবে রগ খাওয়া যাবেনা।

হালাল পশুর যে ৭টি অঙ্গ হারাম সেগুলো হলো-

১- প্রবাহিত রক্ত।

২- নর প্রাণীর পুং লিঙ্গ।

৩- অন্ডকোষ।

৪- মাদী প্রাণীর স্ত্রী লিঙ্গ।

৫- মাংসগ্রন্থি।

৬- মুত্রথলি।

 

৭- পিত্ত।

 

Enjoyed this article? Stay informed by joining our newsletter!

Comments

You must be logged in to post a comment.

Related Articles